মাকড়াপাড়া কালিবাড়ি

0
লেখাটি ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করুন

মাকড়াপাড়া কালিবাড়ি। বান্দাপানি থেকে গিয়েছিলাম। ভারত ভূটান সীমান্তে পাহাড়ের সামান্য ওপরে অবস্থিত এই মন্দির। বীরপাড়া থেকে সরাসরি যোগাযোগ রয়েছে। সমতল থেকে ধাপে ধাপে সিঁড়ি উঠে গেছে ওপরে। স্থানীয় মানুষজনের কাছে খুব জাগ্রত এই মন্দির। পরিবারের নানা শুভ কাজে, পরিবারের সবার মঙ্গল কামনায় সবাই এখানে ভক্তিভরে পুজো দেন। শুধু স্থানীয় মানুষেরাই নন, তাঁদের বাড়িতে আসা আত্মীয়স্বজন, পরিচিত মানুষেরাও এই মন্দিরে পুজো দেন পরিবারের মঙ্গলার্থে। আমরা যখন গিয়েছিলাম তখন দুপুর। ধাপে ধাপে সিঁড়ি পেড়িয়ে যখন মন্দিরের সামনে পৌঁছলাম দেখলাম সামনের কোলাপসিবল গেটটা বন্ধ। মন্দিরে সরাসরি প্রবেশ করা যায়না। মন্দিরে প্রবেশ করতে গেলে পাশের প্রবেশপথ দিয়ে ঢুকতে হয়। আমরা মন্দিরের ভেতর প্রবেশ করিনি।

মূল মন্দিরের ভেতর মায়ের মূর্তির সামনে একদল পূণ্যার্থী তখন মেঝেতে বসে অঞ্জলি দিচ্ছেন। আর পুরোহিত মশাই পাশে দাঁড়িয়ে পবিত্র মন্ত্রোচ্চারণ করে চলেছেন গুরুগম্ভীর কণ্ঠস্বরে, ওং সর্বমঙ্গলা মঙ্গল্যে শিবে সর্বার্থ সাধিকে….। সেইসময় চারিদিকে এক অদ্ভুত নৈশব্দ বিরাজ করছে। তারিমধ্যে পুরোহিত মশাইয়ের উদাত্ত মেঘমন্দ্রিত স্বরে মন্ত্রোচ্চারণ এক স্বর্গীয় পরিবেশ রচনা করেছিল। মূল মন্দিরের সামনের চাতালে দাঁড়িয়ে মায়ের প্রসন্ন অভয়া মূর্তির দিকে তাকিয়ে আমিও হাতজোড় করে পুরোহিত মশাইয়ের কণ্ঠে কণ্ঠ মেলালাম, ওং সর্বমঙ্গলা মঙ্গল্যে….।

মাকড়াপাড়া কালিবাড়ি

মাকড়াপাড়া কালিবাড়ি

সোশ্যাল মিডিয়া থেকে এই লেখাটি নেওয়া হয়েছে। এই প্রবন্ধ বা পোষ্ট লেখকের পরিচয় যতটুকু পেয়েছি, লেখার নীচে দেওয়া হয়েছে। যদি কেউ এই লেখাটির লেখকের সন্ধান বিস্তারিত জেনে থাকেন, দয়া করে অবশ্যই জানাবেন। আমাদের email করুন এই ঠিকানায়, i@pagolerprolap.in অথবা লেখার নীচে কমেন্টে করুন।


লেখাটি ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করুন

★আপনার মূল্যবান মন্তব্য দিয়ে আমাদের পথ চলা ধারাকে অব্যাহত রাখুন★

★ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে কমেন্ট করুন★

Leave A Reply