চাকরি ভালো না ব্যাবসা ভালো? ছোট্ট গল্পের মদ্ধে লুকিয়ে আছে উত্তর

1
Share it, if you like it

দিল্লিতে একজন স্যামোসা (সিঙ্গাড়া) ওয়ালা ছিল এবং তার দোকানের সামনে একটি বড় কোম্পানির অফিস ছিল। একদিন এক ম্যানেজার দোকানে স্যামোসা (সিঙ্গাড়া) খেতে গেল। দুইটি স্যামোসা (সিঙ্গাড়া) নিয়ে দোকানদার কে প্রশ্ন করলো যে, তুমি খুব সুন্দর করে দোকানটা সাজিয়েছো, সিস্টেম গুলো ভালো, সুন্দর এডমিনিষ্ট্রেশন, তাহলে তোমার এত সুন্দর প্লানিং নিয়ে আমার মত জব (চাকরি) করলে ভালো হতো না, এই স্যামোসা (সিঙ্গাড়া) বিক্রি করে তো তুমি সময় নষ্ট করছো না?

স্যামোসা (সিঙ্গাড়া) দোকানদার হাসি দিয়ে বলল – স্যার আমার কাজটা আপনার থেকে অনেক ভাল। আজ থেকে ১০ বছর আগে আমি স্যামোসা (সিঙ্গাড়া) বিক্রি করতাম টুকরীতে। তখন আমার আয় ছিল ১০০০/মাস এবং আপনার বেতন ছিল ১০ হাজার। আজ ১০ বছর পর আমার আয় ১ লক্ষ এবং কোন কোন মাসে ১ লক্ষ বেশি আর আপনার এখন বেতন ১লক্ষ। তাহলে আপনার থেকে আমার কাজটা বেশি ভালো না?

আমার পরে আমার এই ব্যবসা আমার ছেলে দেখবে। সে সাজানো একটা ব্যবসা পাবে কিন্তু আপনার ছেলে মেয়ে কি আপনার মত পজিশন পাবে? আমি শুন্য থেকে শুরু করেছি কিন্তু আমার ছেলেমেয়েরা শুন্য থেকে শুরু করবে না। চাকুরীজিবীগনের ছেলে মেয়েদের শুন্য থেকেই শুরু করতে হবে। আপনি চাইলেও আপনার পজিশনে আপনার ছেলে মেয়ে কে বসাতে পারবেন না। আপনি ১০ বছর আগে যে কষ্টটা করেছেন আপনার ছেলে মেয়েদের কেউ একই কষ্ট করতে হবে।আমার ছেলে মেয়েদের ভবিষ্যত গুছিয়ে দেওয়া আমার দায়িত্ব আর আমি তাই করেছি যা আপনি পারেন নাই।

লোকটা কথা গুলো শুনে ৫০ টাকা বিল পরিশোধ করে চলে গেল। এন্টারপ্রেনারের জন্ম হয় কঠোর পরিশ্রমে যার পিছনে থাকে সূদৃড় সিদ্ধান্ত, পরিকল্পনা ও পরিশ্রম।

ঘটনাটি পড়ার পর অনেকেই কমেন্ট করবেন যে, এটা তো পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বা ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বা আমাদের প্রধান মন্ত্রীর সুরে সুর মেলাচ্ছে। কথাটা সত্যিই, আমি অস্বীকার করছি না। আর এটাও সত্যি যে উপরের ঘটনাটি কোনো রূপকথার গল্প নয়। আপনি বর্তমানের যেকোনো শিল্পপতির প্রথম জীবনে উকি মারুন, এই একই গল্প দেখতে পাবেন। হাজার হাজার উদাহরণ আছে আমাদের সামনে। উদাহরণ হিসেবে আমি আম্বানীদের নাম তুলে ধরলাম।

★★ Please make a comment using Facebook profile ★★

অজানা লেখক

সোশ্যাল মিডিয়া থেকে এই লেখাটি নেওয়া হয়েছে। এই প্রবন্ধ বা পোষ্ট লেখকের পরিচয় যতটুকু পেয়েছি, লেখার নীচে দেওয়া হয়েছে। যদি কেউ এই লেখাটির লেখকের সন্ধান বিস্তারিত জেনে থাকেন, দয়া করে অবশ্যই জানাবেন। আমাদের email করুন এই ঠিকানায়, i@pagolerprolap.in অথবা লেখার নীচে কমেন্টে করুন।

অন্যান্য লেখা

1 Comment

Leave A Reply