কতদিন আর এভাবে ঘরে বসে খাবি?

0
লেখাটি ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

‘কতদিন আর এভাবে ঘরে বসে খাবি?’ বলে উঠলেন পাড়ার রমেশ কাকা,’আমার ছেলেতো মস্ত বড় সরকারী চাকরী করে’!!

সাইকেল টা বের করে চুপচাপ ঘর থেকে বেরিয়ে দোকানের দিকে এগোয় দীপু।

দীপু হলো রমানন্দপুরের বাসিন্দা,ভালোনাম দীপেন্দু কর। বাবার ছোট্টো একটা মুদি দোকান আছে।বাড়িতে মা আর বোন রিমি রয়েছে। দীপুর ছোটো থেকেই পড়াশোনার শখ,ইচ্ছে ছিলো বিজ্ঞানী হবে সে। ভালো পড়াশোনাতেও ছিলো। মাধ্যমিকের পর সাইন্স নিয়ে পড়ে। উচ্চমাধ্যমিকে ভালো রেজাল্ট হওয়ায় ফিজিক্স নিয়ে ভালো কলেজে ভর্তি হয় সে।কলেজে পড়া কালীন দীপুর বাবার সংসার টানতে কষ্ট হলেও তাঁর আশা ছিলো যে ছেলে বড় হলে চাকরী করবে,সংসারের হাল ধরবে আর রিমির একটা ভালো জায়গায় বিয়ে দেবে। কিন্তু কথায় আছে,’মারে হরি তো রাখে কে?’ বেশ ভালো মতোনই পাশ করে দীপু ফিজিক্স অনার্স। এদিকে দীপুর বাবার শরীর টা খারাপ বলে কয়েকদিন ধরে দোকানেই বসছে দীপু। আর পাশাপাশি বহু জায়গায় চাকরীর জন্য ফর্ম ফিলাপ করছে। এদিকে রিমিও বড় হচ্ছে,ওরও বিয়ের জন্য তো টাকা দরকার,সবই তো দীপু কেই করতে হবে!!

কিন্তু ভাগ্যের পরিহাস! বারংবার দীপু ব্যর্থ হয় চাকরীর সন্ধানে। আর হবেও না কেনো?? এখন তো চাকরী মানেই “টাকার খেল”!অনেকটা যেনো ‘ফেলো কড়ি,মাখো তেল’ এর মতোন।কিছু অর্থ লোভী পিশাচ আজকাল চাকরীও বিক্রি করে মোটা অঙ্কের বিনিময়ে।

গোটা দুনিয়া দীপু কে বেকার বলে বিদ্রূপ করে চলে।এমনকি রাতের বেলায় ওর খাবারের থালাটাও ওকে দেখে যেনো বিদ্রূপ করে ‘বেকার ছেলে’ বলে। আর করবেও না কেনো? দীপু যে মধ্যবিত্ত। ওর কাছে না আছে রাজনৈতিক হাত,না রয়েছে বিপুল পরিমাণ টাকা। চাকরী তো পাবে রমেশ কাকুর ছেলে মতোন ধনকুবেররা।

আজও এই শতকে দাঁড়িয়ে কতো যে দীপুর মতো ছেলে ‘বেকার ছেলে’-র তকমা সহ্য করতে না পেরে গলায় দড়ি দেয় কেউ তা জানেনা।কত্তো পরিবার যে তার ছেলের দিকে তাকিয়ে রয়েছে চাকরীর পাবে বলে কেউ খবর রাখেনা,সর্বপরি কত শত পরিবার যে একটা চাকরীর অভাবে তছনছ হয়ে যাচ্ছে তার হিসেব কেউ কোনোদিন রাখেনি,আর রাখবেও না। কারণ তারা “মধ্যবিত্ত”,আর মধ্যবিত্তরাই পৃথিবীর আসল রূপ দেখতে পায়।

Original Post:


লেখাটি ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

লিখে পাঠাতে চান নিজের অভিজ্ঞতা বা লেখা ? পাঠান এই ইমেল-ঠিকানায়: i@pagolerprolap.in অথবা নিচে কমেন্ট করুন !

comments

About Author

আমি আজকাল ভালো আছি..তোকে ছাড়া রাতগুলো আলো হয়ে আছে...আমি আজকাল ভালো আছি।

Leave A Reply